কেজিএফ চ্যাপটার টু এর পর এবার কেজিএফ চ্যাপটার থ্রি! কি হতে পারে গল্প ?

0
1376
কেজিএফ চ্যাপটার টু

আজ আমরা কথা বলবো সদ্যমুক্তি প্রাপ্ত ছবি কেজিএফ চ্যাপটার টু (KGF CHAPTER 2) নিয়ে এবং এর সাথে এই সিরিজের আগামী ছবি কেজিএফ চ্যাপটার থ্রি (KGF CHAPTER 3) তে গল্প কিভাবে এগোতে পারে তার সম্ভাব্য বিষয় নিয়ে আপনাদের সাথে আলোচনা করব। তবে তার আগেই বলে রাখি এই ভিডিওতে আপনারা স্পয়লার পাবেন। সুতরাং যারা এখনও ছবিটি দেখেন নি তারা বাকিটা নিজেদের দায়িত্বে দেখবেন। কেজিএফ (KGF) ফ্র্যাঞ্চাইজি গোটা দেশজুড়েই ভীষণরকম হিট। মানুষের মধ্যে হাইপ তৈরি হয়ে ছিল এই সিরিজের দ্বিতীয় ছবি নিয়ে।

কর্ণাটক ইন্ডাস্ট্রিতে পরিচালক প্রশান্ত নীল যখন এই ছবি বানাচ্ছিলেন তখন তিনিও ভাবেননি দেশের কোটি কোটি মানুষের কাছে এই ছবি এতটা সাড়া ফেলবে। প্যান ইন্ডিয়ার দর্শক পাগলের মত মাতামাতি করবে রকি কে নিয়ে। প্রথম থেকেই পরিচালক ঠিক করেছিলেন দুটি ভাগে তিনি গল্প বলবেন। প্রথমভাগে বিপুল সাড়া পাওয়ার পর দ্বিতীয় ভাগেও সমানভাবে মজা করেছে দর্শকরা। সঞ্জয় দত্ত থেকে শুরু করে রবীনা ট্যান্ডন অন্যদিকে Yash তো আছেই।
কেজিএফ চ্যাপটার টু

কেজিএফ চ্যাপটার টু (KGF CHAPTER 2) তে রকি ভাই কি সত্যিই মারা গেছে ?

তবে কেজিএফ চ্যাপটার টু (KGF CHAPTER 2) দেখার পর থেকেই মানুষের মনে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে কেজিএফ চ্যাপটার থ্রি (KGF CHAPTER 3) নিয়ে। কী হতে পারে তৃতীয় ভাগের গল্প? দ্বিতীয় ভাগের শেষে আমরা দেখেছি জলের মধ্যে পড়ে গেছে ছবির মুখ্য চরিত্র রকি। কিন্তু সে কি সত্যিই মারা গেছে? এটাই এখন লাখ টাকার প্রশ্ন। তবে বলে রাখা ভালো, রকি পড়ে যাওয়ার পর তার মৃত্যুর কোনরকম চিন্হ পরিচালক দেখায়নি। ফলে খুব সম্ভবত সে হয়তো বেচেঁ থাকতে পারে। প্রথম ভাগে আমরা দেখেছি খুব ছোটবেলায় নিউমোনিয়া থেকে ফিরে এসেছিল রকি ভাই। ফলে এক্ষেত্রে পরিচালক সেই বিষয়টির পুনরাবৃত্তি করতে পারেন।

কেজিএফ চ্যাপটার থ্রি (KGF CHAPTER 3) এর গল্প কি হতে পারে ?

এবার ধরে নেওয়া যাক রকি সত্যিই মারা গেছে, তাহলে কেজিএফ চ্যাপটার থ্রি (KGF CHAPTER 3) এর গল্প এগোতে পারে ফ্ল্যাশব্যাকে। অর্থাৎ কেজিএফ চ্যাপটার ওয়ান (KGF Chapter 1) এবং কেজিএফ চ্যাপটার টু (KGF CHAPTER 2) এর মধ্যবর্তী সময়কালে বিদেশে রকি যে ব্যবসা করেছে সেই কাণ্ডকারখানা নিয়ে তৈরি হতে পারে কেজিএফ চ্যাপটার থ্রি (KGF CHAPTER 3)। যদিও এর সম্ভাবনা খুবই কম, বরং রকির বেঁচে থাকার সম্ভাবনাই বেশি। এর পেছনে অবশ্য কতগুলি কারণ রয়েছে।
কেজিএফ চ্যাপটার ওয়ান

প্রথমত, যদি রকির মৃত্যু হয়ে থাকে তাহলে ভারতীয় দর্শকদের মধ্যে কেজিএফ চ্যাপটার থ্রি (KGF CHAPTER 3) সেভাবে সফল হওয়ার সম্ভাবনা কম। কারণ, ভারতের মাস অডিয়েন্স মৃত হিরোর অতীত দেখতে হলমুখী হবে তা আশা করা যায়না এবং এই বিষয়টি নির্মাতারাও ভালোভাবে জানেন ফলে, ব্যবসার খাতিরে রকিকে ফিরিয়ে আনাই দস্তুর।

দ্বিতীয়ত, এর আগে নেটফ্লিক্সে ‘Extraction’ নামক একটি ছবিতে আমরা একই রকম শেষ দেখেছিলাম যেখানে একটি ব্রিজ থেকে ক্রিস হেমসওয়ার্থ জলে পড়ে গেছিলেন। তবে সেই ছবির দ্বিতীয় ভাগ আসতে চলেছে যেখানে দেখা যাবে ক্রিস বেঁচে গেছেন। এই একটি বিষয় পরিচালক প্রশান্ত নীল ও করতে পারেন।

রকি ভাই এর কাছে কোনো কিছুই অসম্ভব নয় :

তৃতীয়ত, গোটা কেজিএফ (KGF) এর দুটি পার্ট জুড়ে রকিকে পরিচালক যেভাবে তৈরি করেছে, তার কাছে কোন কিছুই অসম্ভব নয় এবং সে ভীষন চালাক ও বেপরোয়া। ফলে সকলকে চিঠি লিখে জানিয়ে মরে যাওয়ার ছেলে সে মোটেই নয়, ফলে কোনভাবেই এই যুক্তি খাটেনা যে দ্বিতীয় ভাগের শেষে রকির মৃত্যু হয়েছে। বরং এমন হতে পারে গোটাটাই তার প্ল্যানের অংশ। সমুদ্রে সে নিজের সমস্ত সোনা লুকিয়ে সেভ প্যাসেজ দিয়ে অন্য কোথাও পালিয়েছে কারণ সে জানত কুড়ি হাজার ফুট নিচে জলের অত গভীরে আন্তর্জাতিক সীমানায় তাকে কেউ খুঁজতে যেতে পারবেনা।

চতুর্থত, সেভ প্যাসেজের কথা বলতে গেলে জিমি কার্টারের কথা বলতেই হবে। সিনেমায় যে সময়কাল কে ধরা হয়েছে বাস্তবে সেই সময় আমেরিকার ৩৯ তম প্রেসিডেন্টের নাম ছিল জিমি কার্টার। ফলে পরিচালক এই বিষয়টিকে কোনোভাবে লিংক করে রকিকে বাঁচিয়ে তুলতে পারেন। কেজিএফ চ্যাপটার থ্রি (KGF CHAPTER 3) তে আমরা দেখতে পারি আমেরিকা কোনভাবে রকিকে সাহায্য করেছে ভারতের হাত থেকে বাঁচাতে।

পঞ্চমত, কেজিএফ চ্যাপটার থ্রি (KGF CHAPTER 3) তে ইনায়াত খলিল বড় ভূমিকা নিতে পারে। আমরা কেজিএফ চ্যাপটার টু (KGF CHAPTER 2) তে জেনেছি রকি তার সমস্ত সোনা নিয়ে ইনায়াত খলিলের কাছে গেছিল কোন বড় প্ল্যান করতে। এই প্ল্যান রমিকা সেনের হাত থেকে নিরাপদে প্রস্থান কি না তা কে জানে?
কেজিএফ চ্যাপটার টু

পরিচালক অনেক ছোট ছোট ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছেন কেজিএফ চ্যাপটার টু (KGF CHAPTER 2) জুড়ে যার থেকে খুব সহজেই কেজিএফ চ্যাপটার থ্রি (KGF CHAPTER 3) তে রকি বেঁচে ফিরতে পারে। আমরা যে বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা করলাম সেই সবকিছুই আমাদের নিছক অনুমান। এবার পরিচালক কিভাবে নিজের গল্প বলবেন তা তিনিই জানেন তার জন্য আমাদের অপেক্ষা করতে হবে কেজিএফ চ্যাপটার থ্রি (KGF CHAPTER 3) এর ট্রেলার পর্যন্ত। তারপরেই অনেক কিছু পরিষ্কার হয়ে যাবে।

দেখুন ভিডিও :

কেমন লাগলো অবশ্যই জানান

SHARE