একটা নয় চার চারটে জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেলের স্রষ্টা, গৌরব তপাদারের উঠে আসার গল্প

0
8835
Gourab Tapadar
Gourab Tapadar

বিগত কিছু বছর ধরেই গোটা ভারতবর্ষের পাশাপাশি বাংলাতেও জনপ্রিয় হয়েছে ইউটিউব। বাংলার নবপ্রজন্মের ছেলেমেয়েরা পড়াশোনার পাশাপাশি ইউটিউবকে নিজের কেরিয়ার হিসেবে বেছে নিচ্ছে। অনেকে আবার নিজের কেরিয়ার ছেড়ে ইউটিউবকেই কেরিয়ার বানিয়ে নিয়েছে। বাংলার হাতে গোনা কয়েকজন সুপরিচিত ইউটিউবারদের মধ্যে গৌরব তপাদারের (Gourab Tapadar) নাম বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। মোটিভেশনাল ভিডিও থেকে শুরু করে গানবাজনা, অডিও স্টোরি সবকিছুতেই সমান পারদর্শী গৌরব। চারটি চ্যানেল আছে তার ইউটিউবে।

গৌরব তপাদারের (Gourab Tapadar) উঠে আসার গল্প :

কলকাতার পাটুলির ছেলে গৌরব প্রাইমারি স্কুলের পড়াশোনা শেষ করে নাকতলা হাইস্কুলে ভর্তি হন। সেখান থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাশ করে গৌরব সুরেন্দ্রনাথ কলেজ থেকে গ্র্যাজুয়েশন পাশ করে। ছোটবেলা থেকেই বাবার নিয়ে আসা গানের ক্যাসেটে গান শুনতে শুনতে মিউজিককে নিজের ভালো লাগায় পরিণত করে গৌরব। তবে আর পাঁচটা সাধারণ পরিবারের ছেলের মতো গৌরবের ক্ষেত্রেও মিউজিক কে নিজের কেরিয়ার বানানোর সাহস হয়নি প্রথমে। তবে মনের ভেতরে ভালো লাগা তো ছিলই।

ধীরে ধীরে একটি ব্যান্ডের সাথে যুক্ত হয়ে সেখানে গান লিখতে এবং টুকটাক মিউজিক কম্পোজ করতে শুরু করেন গৌরব। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গান গাইতেও শুরু করে সে তবে, তাকে প্রথমে জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছে ফেসবুকের একটি লেখা। রোজ সোশ্যাল মিডিয়ায় কতকিছুই তো ঘোরাফেরা করে। তার মধ্যে কিছু মানুষের চোখে পড়ে কিছু পড়েনা। প্রেম বিষয়ক একটি লেখা ভালো লেগেছিল গৌরবের। সেটা পাঠ করে সুন্দর ছবি এবং মিউজিক দিয়ে আপলোড করে দিয়েছিল সে ফেসবুকে। ব্যাস! তারপরেই তা ভাইরাল। গৌরবের কন্ঠস্বর যে সুন্দর এবং মিষ্টি তা আশা করি নতুন করে বলার প্রয়োজন নেই। নেটিজেনদের অধিকাংশেরই পছন্দ হয় সেই ভিডিও।

ইউটিউবে পথ চলা :

এরপরেই এই সুযোগকে কাজে লাগিয়েছিল গৌরব। প্রত্যেক মানুষের জীবনেই কখনো না কখনো সুযোগ আসে। বুদ্ধিমানরা সেই সুযোগকে কাজে লাগাতে জানে। গৌরব একজন প্রতিভাবান শিল্পী হওয়ার পাশাপাশি বুদ্ধিমান মানুষও বটে। তাই সে নিজের কন্ঠস্বরের ওপর অবলম্বন করেই খুলে ফেলে একটি ইউটিউব চ্যানেল। নিজের নাম ‘গৌরব তপাদার’ (Gourab Tapadar) নামেই চ্যানেলটি খোলে সে। সেখানে আপলোড করতে থাকে নানা মোটিভেশনাল ভিডিও। ভারতের পাশাপাশি বাংলাদেশেও ভাইরাল হয়ে যায় তার ভিডিও। দুই দেশের বাংলাভাষী মানুষের কাছেই সমান জনপ্রিয় গৌরব। প্রেমে ছ্যাকা খাওয়া প্রেমিক থেকে শুরু করে চাকরির আশায় বসে থাকা অ্যাসপিরেন্ট সকলেই গোরবের কথায় উদবুদ্ধ হয়ে নতুন ভাবে জীবনে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা পায়।

দেখতে দেখতে ‘গৌরব তপাদার’ (Gourab Tapadar) চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা ১ মিলিয়ন ছাড়িয়েছে। অর্থাৎ এখন দশ লক্ষেরও বেশি মানুষ যুক্ত গৌরবের সঙ্গে। তবে এরপরে শুধু মোটিভেশনাল ভিডিও নয়, ভ্লগ থেকে শুরু করে অডিও স্টোরি এবং গানের জন্যেও আলাদা আলাদা চ্যানেল খুলেছে গৌরব। ইউটিউব প্ল্যাটফর্ম কে কাজে লাগিয়ে নিজের কেরিয়ারকে সে দিয়েছে কিক স্টার্ট। তাকে দেখে বাংলার বহু ছেলে নতুন করে ইউটিউবকে নিয়ে ভাবতে শুরু করেছে।

গোরবের ভিডিওর বিষয় গুলিই তাকে বাকি ইউটিউবারদের থেকে আলাদা করে তোলে। শুধুমাত্র সিনেমা রিভিউ, রোস্টিং বা বোকা বোকা গালগল্প নয়, বাকিদের মত স্রোতে গা না ভাসিয়ে নিজের মতো করে নিজের ভালোবাসার জিনিসকেই মানুষের সামনে উপস্থাপন করে থাকে গৌরব যা প্রমাণ করে নিজের প্যশনের প্রতি সে কতটা সৎ।

গুগুল সার্চে গৌরব :

গুগুলে গৌরবের ভক্তরা তার বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য জানার জন্য ভিড় জমায়। গুগুলে Gourab Tapadar সার্চ করলেই দেখা যাবে ভক্তরা জানতে চেয়েছে Biography, Date of Birth, Birthday, Pic, Instagram, Phone number, Kobita, Income, Song

একদম মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে উঠে আসা গৌরবের জীবনের এই গল্প প্রেরণা দেয় বহু মানুষকে। তার ভিডিও গুলির মত সে নিজেও মানুষকে মোটিভেট করে প্রতিমুহুর্তে। আর সেই জন্যই তার ভিডিও গুলিতে লক্ষ লক্ষ ভিউস। তবে এই সবে শুরু, সামনে পড়ে আছে গোটা জীবন। ইউটিউবের পাশাপাশি মিউজিক নিয়েও আগামী দিতে এগোতে চায় গৌরব কারণ সেটাই তার আসল প্যাশন, ভালোবাসা। আমাদের তরফ থেকে তার জন্য শুভকামনা রইলো।

কেমন লাগলো অবশ্যই জানান

SHARE